আপেল সিডার ভিনেগার খাওয়ার নিয়ম

আপেল সিডার ভিনেগার খাওয়ার নিয়ম জেনে নিন!

আপেল সিডার ভিনেগার খাওয়ার নিয়ম – স্বাস্থ্য সচেতন মানুষদের মধ্যে খুবই জনপ্রিয় একটি টনিক হলো আপেল সিডার ভিনেগার। মূলত আপেল থেকে গাঁজন প্রকিয়ার মাধ্যমে আপেল সিডার ভিনেগার তৈরি করা হয়। এ ভিনেগারে প্রায় ৫ থেকে ৬ শতাংশ অ্যাসেটিক এসিড, এন্টি-অক্সিডেন্ট ও খনিজ লবণ বিদ্যমান থাকে যা শরীরের জন্য উপকারি। 

পেটের সমস্যা দূর করার জন্য আপেল সিডার ভিনেগার মারাত্মক কার্যকরী। তাছাড়া শরীরের ওজন,রক্তে শর্করার পরিমাণ,কোলেস্টেরল কমানো সহ নানাবিধ উপকার করতে এই উপাদানটি সিদ্ধহস্ত! দারুণ ব্যাপার হলো শর্করা সমৃদ্ধ খাবার খাওয়ার পর আপেল সিডার ভিনেগার খেলে দিনের অবশিষ্ট সময়ে সহজে ক্ষুধা অনুভব হয় না। 

প্রতিদিন আপেল সিডার ভিনেগার গ্রহণ করলে তা ওজন ও পেটের মেদ কমাতে সাহায্য করে তবে এক্ষেত্রে অবশ্যই খাবার গ্রহণের পরিমাণও কমাতে হবে।

আপেল সিডার ভিনেগারের অনেক উপকারিতা থাকায় অনেকেই নিয়মিতভাবে এটি গ্রহণ করে থাকেন। কিন্তু সঠিক নিয়ম মেনে না খেলে এক্ষেত্রে ক্ষতির আশঙ্কা থেকে যায়। চলুন আপেল সিডার ভিনেগার খাওয়ার সঠিক পদ্ধতিগুলো জেনে আসি।

আপেল সিডার ভিনেগার খাওয়ার নিয়ম:

  • এক গ্লাস পানির সাথে এক অথবা দুই টেবিল চামচ আপেল সিডার  ভিনেগার মিশিয়ে খালিপেটে পান করুন।
  • ঘরে সালাদ বা মেয়োনিজ তৈরির সময় এ ভিনেগার ব্যবহার করতে পারেন।

আপেল সিডার ভিনেগার খাওয়ার নিয়ম ঠিকভাবে পালন করতে হলে কিছু সতর্কতা অবলম্বন করা আবশ্যক। এক নজরে দেখুন যে বিষয়গুলো মাথায় রাখা খুবই জরুরি।

অবশ্য করণীয়:

  • খাবার খাওয়ার ঠিক পরেই অর্থাৎ ভরপেটে আপেল সিডার ভিনেগার খাওয়ার অভ্যাস সম্পূর্ণরূপে বর্জন করতে হবে।
  • কোনো কিছু খাওয়ার পূর্বে যাদের গন্ধ শুঁকে দেখার অভ্যাস তারা আপেল সিডার ভিনেগারের  ক্ষেত্রে সাবধান। কারন আপেল সিডার ভিনেগারের গন্ধ শুঁকলে নাক ও চোখের সমস্যা হতে পারে।
  • আপেল সিডার ভিনেগার খাওয়ার পরপরই দাঁত ব্রাশ করা থেকে বিরত থাকতে হবে।এতে দাঁতে ক্যাভিটি  দেখা দিতে পারে।তাই অতন্ত ৩০ মিনিট পর দাঁত ব্রাশ করুন।
  • আপেল সিডার ভিনেগার প্রথমে অল্প অল্প করে খাওয়া শুরু করুন। শরীরের সাথে অভ্যস্ত হতে সময় দিন তা নাহলে পেটে সমস্যা দেখা দিতে পারে।
  • রাতের বেলা ঘুমানোর ঠিক আগে আপেল সিডার ভিনেগার খাবেন না। এটি খাবার পর অন্তত ৩০ মিনিট সোজা হয়ে বসে থাকুন তা নাহলে অম্বল হওয়ার সম্ভাবনা থেকে যাবে।

উপরোক্ত আলোচনার প্রেক্ষিতে বলা যায় আপেল সিডার ভিনেগার অত্যন্ত কার্যকরী ভেষজ উপাদান।  তাই আমাদের অবশ্যই আপেল সিডার ভিনেগার খাওয়ার নিয়ম সঠিকভাবে অনুসরণ করতে হবে এবং উপর্যুক্ত সতর্কতাগুলো বিবেচনায় রেখে এই অর্গানিক উপাদানটি গ্রহণ করতে হবে। অন্যথায় মারাক্তক স্বাস্থ্য ঝুঁকির সম্ভাবনা থেকে যাবে।

আরো বিস্তারিত জানতে পড়ুনঃ আপেল সিডার ভিনেগার খাওয়ার নিয়ম – ২০ টি স্বাস্থ্যকর টিপস!

লেখকঃ সৈকত জামান

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top